তরুণের স্বপ্ন প্রকল্প, সুবর্ণ সুযোগ: সরকার ১০ হাজার টাকা দিচ্ছে স্মার্টফোন কেনার জন্য

Whatsapp-Group-Link
krishak bandhu Join Whatsapp channel

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উদ্যোগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘তরুণের স্বপ্ন’ প্রকল্প পড়ুয়াদের জন্য একটি চমৎকার উদ্যোগ। এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রতিটি দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়া ১০ হাজার টাকা আর্থিক সাহায্য পেতে পারে, যা তাদের স্মার্টফোন কেনার জন্য ব্যবহার করা যায়।

প্রকল্পের উদ্দেশ্য

এই প্রকল্পের মূল লক্ষ্য হল পড়ুয়াদের প্রযুক্তিগত সহায়তা প্রদান করে পড়াশোনার জন্য স্মার্টফোন বা ট্যাব কেনার সুযোগ করে দেওয়া। এই উদ্যোগের ফলে পড়ুয়ারা ডিজিটাল শিক্ষা পদ্ধতির সাথে আরো সহজে যুক্ত হতে পারবে এবং তাদের জ্ঞানের ভাণ্ডার আরো সমৃদ্ধ হবে।

আরো পড়ুন: প্রধানমন্ত্রী বিশ্বকর্মা যোজনা: কারিগরদের ১৫,০০০ টাকার আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হবে

কারা এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন?

পশ্চিমবঙ্গ সরকার পরিচালিত স্কুল বা মাদ্রাসায় দ্বাদশ শ্রেণিতে অধ্যয়নরত পড়ুয়ারা এই প্রকল্পের অধীনে আর্থিক সাহায্য পাবেন। তবে কিছু শর্তও রয়েছে:

  • পড়ুয়ার পরিবারের বার্ষিক আয় ২ লাখ টাকার নিচে হতে হবে।
  • শুধুমাত্র স্মার্টফোন বা ট্যাব কেনার জন্য এই অর্থ ব্যবহার করা যাবে।
  • প্রাপ্ত অর্থ দিয়ে কেনা স্মার্টফোন বা ট্যাবের রসিদ স্কুলে জমা দিতে হবে।

আবেদন করার পদ্ধতি

এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করার প্রক্রিয়া খুবই সহজ:

  1. স্টুডেন্ট ডি সি এফ ফর্ম পূরণ করুন: পড়ুয়াদের স্কুল থেকে এই ফর্মটি সংগ্রহ করতে হবে। ফর্মে নাম, বাবার নাম, স্কুলের নাম, বয়স, আধার কার্ডের নম্বর, রক্তের গ্রুপ, শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রমাণ, অভিভাবকদের নাম ও ঠিকানা, ঠিকানা প্রমাণ এবং ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত তথ্য পূরণ করতে হবে।
  2. ফর্ম জমা দিন: পূরণ করা ফর্মটি স্কুলে জমা দিতে হবে। সঙ্গে এক কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি সংযুক্ত করতে হবে।
  3. তথ্য যাচাই: শিক্ষকেরা ফর্মে থাকা তথ্য অনলাইনে আপলোড করবেন এবং যাচাইয়ের পর নির্বাচিত পড়ুয়াদের অ্যাকাউন্টে ১০ হাজার টাকা পাঠানো হবে।

আরো পড়ুন: প্রধানমন্ত্রী PM কিষাণ ১৮ তম কিস্তির টাকা কবে দেওয়া হইবে, প্রতিমাসে 2000

২০২৪ সালে মাধ্যমিক পাশ পড়ুয়াদের জন্য সুখবর

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, এই বছর থেকে মাধ্যমিক পাশ করা পড়ুয়ারাও ‘তরুণের স্বপ্ন’ প্রকল্পের টাকা পাবেন।

তবে শর্ত অনুযায়ী মাধ্যমিক পাশ করলেই হবে না, পড়ুয়াদের একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি হতে হবে। মাধ্যমিক পাশের প্রমাণপত্র এবং একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির প্রমাণপত্র জমা দেওয়ার পরই প্রকল্পের টাকা পড়ুয়াদের অ্যাকাউন্টে জমা হবে।

কেন এই প্রকল্প গুরুত্বপূর্ণ?

কোভিড-১৯ অতিমারির সময়ে অনলাইন শিক্ষার গুরুত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই স্মার্টফোন বা ট্যাব কেনার জন্য আর্থিক সাহায্য প্রদানের মাধ্যমে পড়ুয়ারা তাদের শিক্ষাগত প্রয়োজন মেটাতে সক্ষম হবে।

এই প্রকল্পের ফলে পড়ুয়াদের শিক্ষায় আরো উন্নতি হবে এবং তারা ডিজিটাল শিক্ষার সাথে আরো ভালোভাবে যুক্ত হতে পারবে।

আরো পড়ুন: তরুণের স্বপ্ন প্রকল্প, সুবর্ণ সুযোগ: সরকার ১০ হাজার টাকা দিচ্ছে স্মার্টফোন কেনার জন্য

উপসংহার

‘তরুণের স্বপ্ন’ প্রকল্পের মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের এই উদ্যোগ পড়ুয়াদের জন্য একটি মহৎ উদ্যোগ। এই প্রকল্পের ফলে পড়ুয়ারা স্মার্টফোন বা ট্যাব কিনে শিক্ষায় আরো উন্নতি করতে পারবে। তাই, পড়ুয়ারা এই প্রকল্পের সুবিধা নিয়ে তাদের শিক্ষাগত যাত্রাকে আরও সমৃদ্ধ করুন।

আরো পড়ুন: মাধ্যমিক পাশ করা ছাত্র-ছাত্রীরা পাবেন ১০,০০০ টাকা, বিদ্যাধন স্কলারশীপ ২০২৪

Leave a Comment